31.9 C
Jalpāiguri
Tuesday, September 27, 2022

আপত্তি IPL মালিকদের, লিগেও ব্রাত্য পাকিস্তানি খেলোয়াড়রা: রিপোর্ট

- Advertisement -


দক্ষিণ আফ্রিকার টি-টোয়েন্টি লিগে ব্রাত্য থাকতে পারেন পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। সংযুক্ত আরব আমিরশাহির লিগেও সম্ভবত খেলার সুযোগ পাবেন না। একাধিক রিপোর্টে এমনই দাবি করা হয়েছে। ওই রিপোর্ট অনুযায়ী, ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের আপত্তিতে পাকিস্তানিদের খেলা আটকে যেতে পারে।

কিন্তু ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকরা কেন আপত্তি জানাচ্ছেন?

InsideSport-র রিপোর্ট অনুযায়ী, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগে একাধিক ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের মালিকানা আছে আইপিএলের হাতে। সেই পরিস্থিতিতে আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকাধীন দলে পাকিস্তানিরা খেললে ভারতে বিরূপ মনোভাব তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। সেক্ষেত্রে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগে সম্ভবত বাবর আজম, শাহিন আফ্রিদিদের মতো খেলোয়াড়দের দেখা যাবে না বলে ওই রিপোর্টে জানানো হয়েছে। এমনিতে ২০০৮ সালে মুম্বই হামলার পর থেকে আইপিএলে পাকিস্তানিরা খেলতে পারেন।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগ

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম দ্য এজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, দ্য এজ এবং দ্য সিডনি মর্নিং হেরাল্ডকে অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ইংল্যান্ডের কর্তারা জানিয়েছেন যে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগ নিয়ে আইসিসির কাছে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের দাবি, যে টি-টোয়েন্টি লিগের প্রচুর বিদেশি খেলোয়াড় নেওয়ার সুযোগ থাকবে, সেগুলিকে যেন আইসিসির তরফে অবৈধ বলে ঘোষণা দেওয়া হয়।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগের নিয়ম অনুযায়ী, প্রতিটি দলের প্রথম একাদশে সর্বোচ্চ নয়জন বিদেশি খেলোয়াড় নেওয়া যাবে। স্থানীয় খেলোয়াড় দু’জন থাকলেই হবে। কিন্তু আইপিএল, অস্ট্রেলিয়ার বিবিএল, পাকিস্তানের পিএসএল এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) মতো ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে এত বেশি সংখ্যক বিদেশি খেলানো যায় না। আইপিএলে প্রথম একাদশে সর্বোচ্চ চার বিদেশি খেলানো যায়।

একাধিক রিপোর্ট অনুযায়ী, সেইসঙ্গে অর্থের সর্বোচ্চসীমাও নেহাত নয়। যা আইপিএলের বাইরে সবথেকে লোভনীয় লিগত হতে চলেছে। বিশ্বের প্রথমসারির খেলোয়াড়দের ৭০০,০০০ ডলার পর্যন্ত দেওয়া হতে পারে।

দ্য এজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, আগামী বছর জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারির মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির লিগ খেলা হতে পারে। সেক্ষেত্রে সরাসরি বিবিএল এবং দক্ষিণ আফ্রিকার টি-টোয়েন্টি লিগের সঙ্গে সূচির ‘ধাক্কা’ লাগবে। সংযুক্ত আরব আমিরশাহির লিগ চলার মধ্যে পিএসএলের প্রথম পর্যায়ের কয়েকটি ম্যাচও পড়তে পারে। কবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে সেই লিগ শুরু হবে, তা নিয়ে আলোচনা চলছে বলে ওই রিপোর্টে জানানো হয়েছে।



Source link

Related Articles

Stay Connected

19,467FansLike
3,502FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

%d bloggers like this: