ওমানের সাথে প্রস্তুতি ম্যাচে ফিনিশিং দিয়ে নিজের যোগ্যতার প্রমাণ রাখলেন সোহান







দলের ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে প্রবেশ করছেন নুরুল হাসান সোহান; পাশ দিয়েই মাথা নীচু করে ড্রেসিং রুমের পথে আফিফ হোসেন ধ্রুব। মোহাম্মদ নাইম এগিয়ে গিয়ে হাতটা মিলিয়ে নিলেন সোহানের সাথে; হয়তো দেখেশুনে শুরু করার বার্তাটাই দিলেন সতীর্থকে। কিন্তু তাতেই মনে হয় মন ভরলো না নাইমের; দৌড়ে এলেন সোহানের কাছে। হ্যালমেটটাতে হাত বুলিয়ে দিয়ে সোহানকে হয়তো বললেন, “তুই পারবি”সোহান পেরেছেনও। খেলেছেন ১৫ বলে ৪৯ রানের দুর্দান্ত একটা ইনিংস। প্রথম তিন বলেই নিয়েছেন তিনটি সিঙ্গেল। চতুর্থ বলে আমের কালেমের ওয়াইড বরাবর করা বলটাকে মিড অফে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে তুলে দিয়েছেন ক্যাচ; বাউন্ডারী লাইনে দাড়ানো ফিল্ডার ফ্লাডলাইটের আলোর কারণে সহজ ক্যাচটাকে লুফে নেয়া তো দূরের কথা; পারেননি হাতটা ছোঁয়াতেও। ফলাফলস্বরুপ সোহানের ব্যাট থেকে প্রথম ছক্কা।

পরের বলে অফস্ট্যাম্পের উপরে গিয়ে বোলারের মাথার উপর দিয়ে যেই ছক্কাটা হাঁকালেন সোহান; সেটা যেন তার পুরো ইনিংসেরই প্রতিকি চিহ্ন হয়ে থাকলো!ম্যাচের ১৯তম ওভার; বোলিংয়ে ওবায়দুল্লাহ। প্রথম বলেই নো; ফ্রি হিট বলে ব্যাটিং প্রান্তে সোহান। পুরো মাঠটাতে একবার চোখ বুলিয়ে নিলেন টাইগার উইকেটকিপার; এরপর অফস্ট্যাম্পের ওপরে এসে লেগসাইডে বাউন্ডারী ছাড়া করলেন বলটাকে। শুধু যে ঐ ছক্কাতেই থেমেছেন সোহান, তা নয়। পরের দুই বলেও অফস্ট্যাম্পের ওপর উঠে এসে স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে হাঁকিয়েছেন দুই দুইটি ছক্কা।

শেষ ওভারের গল্পটা তো আরো রোমাঞ্চকর। দুই এবং তিন নম্বর বলে শামিম পাটোয়ারীর দুই বলে দুই ছক্কা; শেষ দুই বলে ব্যাটিংয়ে সোহান। দুই বলেই রাফিউল্লাহর করা বলটাকে করেছেন বাউন্ডারী ছাড়া। নিজের খেলা শেষ ১২ বলে সোহানের ব্যাট থেকে এসেছে ৪৬ রান; এরমধ্যে ছক্কাই ৭টি। এ যেনো বিশ্বকাপের মঞ্চে খেলতে গিয়ে অন্য এক সোহান! সোহানের এমন ব্যাটিং যে নিশ্চিতভাবেই স্বপ্ন দেখাবে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপকে সেটা অনুমান করাই যায়।




Check Also



kalkata-not-play-shakib-no-efect

ঘটা করে এবার সাকিব আল হাসানকে দলে ভিড়িয়েছিল ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল কলকাতা নাইট …





Source link