19.7 C
Jalpāiguri
Saturday, November 26, 2022

ওয়াইসিকে মুখ্যমন্ত্রী যোগীর খোলা হুঁশিয়ারি – সরকার জানে কিভাবে আব্বাজান, কাকাকে কঠোরভাবে মোকাবেলা করতে হয়

- Advertisement -


[[

কানপুর: তিনটি নতুন কৃষি আইন প্রত্যাহারের ঘোষণায় উৎসাহিত হয়ে এখন একটি অংশ সিএএ ফিরিয়ে আনার জন্য রাস্তায় নামার কথা বলছে। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ কড়া কথায় এমন লোকদের সতর্ক করেছেন। যোগী বলেছিলেন যে তাঁর সরকার খুব ভাল করেই জানে যে এই ধরনের কাকা-চাচাদের সাথে কীভাবে মোকাবিলা করতে হয় যারা মানুষকে উস্কে দেয়।

‘চাচাজান ও আব্বাজানের সঙ্গে সরকার ব্যবস্থা নেবে’

সিএম যোগী বলেন, ‘নিম্ন নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে যারা আবেগ নিয়ে খেলা করছে, আমি তাদের সতর্ক করছি। এই ধরনের চাচা-চাচাদের সঙ্গে কীভাবে মোকাবিলা করতে হয়, তা সরকার ভালো করেই জানে। তিনি বলেন, আগে প্রতি তৃতীয় দিনে দাঙ্গা হতো, কিন্তু তার সরকারে কোনো দাঙ্গা হয়নি। ওয়াইসি সমাজবাদী পার্টির একজন কমরেড মাত্র। বিজেপির সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই।

‘প্রধানমন্ত্রী মোদী জনসাধারণের জন্য কাজ করেছেন’

মঙ্গলবার কানপুরে বুথ প্রেসিডেন্ট কনভেনশনে বক্তব্য রাখছিলেন সিএম যোগী। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী 2014 সালে যা বলেছিলেন, সেই সব কাজ 2019 সালের মধ্যে হয়ে গেছে। 2019 সালে যা বলা হয়েছিল তা 2021 সালের মধ্যে পূরণ হচ্ছে। আমরা সব সময় বলতাম রামলালা আমরা আসব, সেখানে মন্দির তৈরি হবে। সেই স্বপ্ন পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, করোনায় টেস্ট ফ্রি, ভ্যাকসিন ফ্রি ও ফ্রি রেশন দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মোদীর কারণেই এমনটা হয়েছে। এখন ঘরে ঘরে গিয়ে পিএম মোদির প্রচারের কাজ করতে হবে।

‘১৫ কোটি মানুষকে রেশন দেওয়া হয়েছে’

মুখ্যমন্ত্রী (যোগী আদিত্যনাথ) বলেছেন যে দীপাবলি থেকে হোলি পর্যন্ত, রাজ্য সরকার 15 কোটি মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার জন্য কাজ করবে। এই রেশনে এক কেজি ডাল, তেল, লবণ ও চিনিও দেওয়া হবে। তিনি জনগণের কাছে জানতে চাইলেন, সংকটের সময়ের সঙ্গী কে? যখন কষ্টের সঙ্গী বিজেপি, তখন ভোট পাওয়ার অফিসারও বিজেপি। তিনি বলেন, 2019 সালে বুথ সভাপতিরা যা করেছেন, তারা আবার এসেছেন রেজুলেশন নিতে। প্রধানমন্ত্রী এই মন্ত্র দিয়েছিলেন, বুথ জিতলেই নির্বাচনে জয়ী হয়।

এটিও পড়ুন- ইউপি: বিজেপির সবচেয়ে কলঙ্কিত বিধায়ক, এই দুই মন্ত্রী ঋণখেলাপি; এডিআর রিপোর্ট থেকে জানা গেছে

‘কানপুরের জন্য কাজ করবে সরকার’

সিএম যোগী বলেন, কানপুর, বুন্দেলখণ্ডের এলাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 1857 সালের স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাঁসির রাণী যখন ইংরেজ সালতানাতের দোলা কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন, তখন বিঠুরও কারো থেকে পিছিয়ে থাকেনি। তিনি বলেন, প্রাকৃতিক সম্পদের প্রাচুর্যের কারণে এ এলাকা একটি বিশেষ এলাকা হতে পারত, কিন্তু স্বাধীনতার পরের সরকারগুলো একে লুটপাট করে ফাঁকা করে দিয়েছে। এখন প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে এ এলাকা উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

সরাসরি সম্প্রচার

,

The post ওয়াইসিকে মুখ্যমন্ত্রী যোগীর খোলা হুঁশিয়ারি – সরকার জানে কিভাবে আব্বাজান, কাকাকে কঠোরভাবে মোকাবেলা করতে হয় appeared first on Bangla news.

Related Articles

Stay Connected

19,467FansLike
3,587FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

%d bloggers like this: