31.9 C
Jalpāiguri
Tuesday, September 27, 2022

রাজ্যপাল সত্য পাল মালিক বলেছেন, ‘শিখ-জাটদের পরাজিত করা যাবে না, দিল্লিতে ইন্দিরাকে হত্যা করা হয়েছিল’। হিন্দি সংবাদ, দেশ

- Advertisement -


নতুন দিল্লি: মেঘালয়ের রাজ্যপাল সত্য পাল মালিকের বক্তব্য বহুদিন ধরেই সরকারের ঝামেলা বাড়িয়ে চলেছে। এখন তার আরেকটি বক্তব্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। যেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রী মোদিকে শিখ এবং জাটদের সাথে সমঝোতা করতে বা পরিণতি ভোগ করার পরামর্শ দিতে দেখা যাচ্ছে।

‘শিখ-জাটদের ওপর বলপ্রয়োগ করবেন না’

ভাইরাল ভিডিওতে সত্যপাল মালিক বলছেন, ‘আমি তাঁর (মোদী) সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলাম। আমি তাদের বললাম, আপনারা ভুল বোঝাবুঝিতে আছেন। এই শিখদের পরাজিত করা যাবে না। তাঁর উপস্থিতিতে তাঁর গুরুর চার সন্তানের মৃত্যু হয়। কিন্তু তিনি আত্মসমর্পণ করেননি। এই জাটদেরও পরাজিত করা যাবে না। আমি বললাম দুটো কাজ একদম করবেন না। এক, তাদের উপর শক্তি প্রয়োগ করবেন না, দ্বিতীয়ত তাদের খালি হাতে পাঠাবেন না, কারণ তারা ভুলে যান না।

‘দিল্লিতে ইন্দিরাকে হত্যা করেছে শিখরা’

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা ভিডিওতে সত্যপাল মালিককে আরও বলতে দেখা যায়, ‘অপারেশন ব্লু স্টারে অকাল তখত ভাঙার পর ইন্দিরা গান্ধী তার ফার্ম হাউসে মহামৃত্যুঞ্জয় পাঠ করেছিলেন। তিনি জানতেন যে এই শিখরা ভুলে যায় না। দিল্লিতে শিখরা ইন্দিরা গান্ধীকে হত্যা করেছিল। জেনারেল বৈদ্য, যিনি অপারেশন ব্লু স্টারের পরিকল্পনা করেছিলেন, মহারাষ্ট্রে নিহত হন। লন্ডনে ব্রিটিশ অফিসার ডায়ারকে হত্যা করে।

‘আপনি জানেন না এর পরিণতি কী হতে পারে’

রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক বলেছেন, ‘শিখ ও জাটদের ধৈর্যের পরীক্ষা করবেন না। এর পরিণতি কারো জন্য ভালো হবে না। দুই সেনা জেনারেল আমাকে বলেছিলেন যে কৃষক আন্দোলন ভারতীয় সেনাবাহিনীকেও প্রভাবিত করছে। যে কোন কিছু ঘটতে পারে। আজ তুমি শক্তিতে, অহংকারে সবই করছ। কিন্তু, এর পরিণতি কী হতে পারে তা আপনি জানেন না।

এটিও পড়ুন- সত্যপাল মালিক বলেন- নেতৃবৃন্দ পশুর মৃত্যুতে চোখের জল ফেলে, ৬০০ কৃষকের শাহাদাতে নীরব কেন?

‘এই বক্তব্য সম্পূর্ণরূপে অগ্রহণযোগ্য’

রাজ্যপাল সত্য পাল মালিকের বিতর্কিত বক্তব্যের এই ভিডিওটি টুইট করেছেন লেখক আনন্দ রঙ্গনাথন। সত্যপাল মালিকের এই ভিডিওটি গত মাসে জয়পুরে অনুষ্ঠিত গ্লোবাল জাট সামিটের বলা হচ্ছে। আনন্দ রঙ্গনাথন বিবৃতিতে আপত্তি জানিয়ে বলেছেন, “এই ভাষা এবং এর বিতরণ উভয়ই সম্পূর্ণরূপে অগ্রহণযোগ্য। আমি এই বক্তব্য নিয়ে বেশি উদ্বিগ্ন কারণ এই ব্যক্তি যিনি বিবৃতি দিয়েছেন উচ্চ সাংবিধানিক পদে বসে আছেন। প্রতিশোধমূলক সহিংসতার প্রশংসা করার সময় এটি প্রধানমন্ত্রী মোদিকে হুমকি দিচ্ছে।

মানুষ মালিকের অপসারণের দাবি জানাচ্ছে

এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর, মানুষ সত্যপাল মালিকের বক্তব্যে আপত্তি জানাচ্ছেন। লোকেরা বলছে যে মালিককে তার সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করা উচিত। কোনো বক্তব্য দেওয়ার আগে তার বক্তব্যের গুরুত্ব বোঝা উচিত। একই সঙ্গে রাজ্যপালের চেয়ার থেকে সত্যপাল মালিককে সরিয়ে দেওয়ার দাবিও করছেন অনেকে। ব্যবহারকারীরা বলছেন, যে গভর্নর প্রধানমন্ত্রী পদের মর্যাদা রক্ষা করতে পারেন না, তাকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া উচিত।

সরাসরি সম্প্রচার



Related Articles

Stay Connected

19,467FansLike
3,502FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

%d bloggers like this: