শিক্ষার আলো দিতে সবংয়ের গ্রামে বর্ণপরিচয় পাঠশালা



জে মাহাতো, আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ৯ অক্টোবর: অশিক্ষার অন্ধকারে ডুবে থাকা সবংয়ের একটি গ্রামে আলোর দীপ জ্বালানোর উদ্যোগ নিলেন দুই শিক্ষক। সবং ব্লকের তিন নম্বর দাঁড়রা পঞ্চায়েত এলাকার খোলাগেড়িয়া  মৌজার বাগাল পাড়ায় তমলুকের ভাস্কর ব্রত পতি ও সবংয়ের শান্তনু অধিকারী নামে দুই শিক্ষকের উদ্যোগে খুলেছে নতুন পাঠশালা বর্ণপরিচয়। বাগালপাড়ায় প্রায় একশ খেড়িয়া শবরের বসবাস। হাতেগোনা কয়েকজন স্কুলের মুখ দেখলেও মাত্র একজন চতুর্থ শ্রেণির গণ্ডি পেরিয়েছে। সব দিক থেকে পিছিয়ে থাকা বাগাল পাড়ার এই সম্প্রদায়কে নিজেদের অধিকার সম্পর্কে ধারণা জোগাতে মহালয়ার দিন থেকেই বর্ণপরিচয় পাঠশালায় শুরু হয়েছে বিদ্যাসাগরের বর্ণপরিচয়ের পাঠদান অ আ ক খ।

প্রায় অর্ধশতাব্দী ধরে সবংয়ের খোলাগেড়িয়া মৌজার একটি পুকুরের চারপাশে রয়েছে তিরিশটি শবর পরিবারের বসবাস। ঢিল ছোড়া দূরত্বে প্রাথমিক বিদ্যালয় থাকলেও শবর শিশুরা তার চৌকাঠ মাড়ায়নি। পাড়ার সকলেই দিনমজুরি ও ভিক্ষাবৃত্তি করে কোনও রকমে দিন গুজরান করেন। সেই স্কুলবিমুখ বাগাল পাড়ায় শিক্ষার আলো পৌঁছে দিতে উদ্যোগী দুই শিক্ষক দেবীপক্ষের শুরুতেই খুলে দিলেন বর্ণপরিচয় পাঠশালা। শিশুদের হাতে খাতা, কলম, স্লেট, পেন্সিল তুলে দিয়ে তারা একজন শিক্ষিকাও নিয়োগ করেছেন। আপাতত সপ্তাহে চার দিন পড়াশুনার শেষে পাঠশালায় রয়েছে শিশুদের খাওয়ার ব্যবস্থাও।


পূর্ববর্তী প্রবন্ধেবিজেপির উদ্যোগে ডেবরায় স্বাস্থ্য মেলা
পরবর্তী প্রবন্ধেঘরের দরজা ভেঙ্গে মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য শান্তিপুরে