বিজেপি থেকে বরখাস্ত হলেন জয়প্রকাশ মজুমদার ও রীতেশ তিওয়ারি



আমাদের ভারত,২৪ জানুয়ারি: গতকালই দলবিরোধী মন্তব্যের জন্য জয়প্রকাশ মজুমদার ও রীতেশ তেওয়ারিকে শোকজ করার নোটিশ ধরানো হয়েছিল। আজ আরও একধাপ এগিয়ে তদন্ত চলা পর্যন্ত সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হলো এই দুই বিজেপি নেতাকে।

রবিবারই দল বিরোধী মন্তব্যের জন্য জয়প্রকাশ মজুমদার ও রীতেশ তিওয়ারিকে শোকজ করে রাজ্য বিজেপি। এই শোকজের নোটিশ ২৪ ঘন্টা পেরোতে না পেরোতেই এই দুই নেতাকে দল থেকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করার নোটিশ ধরানো হলো।
জানা গেছে সোমবার জারি করা চিঠিতে লেখা হয়েছে,”রাজ্য সভাপতি ডক্টর সুকান্ত মজুমদার সাংসদ মহাশয়ের নির্দেশ অনুসারে জয়প্রকাশ মজুমদার ও রীতেশ তেওয়ারির বিরুদ্ধে শুরু হওয়া দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের দল থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হচ্ছে। অবিলম্বে রাজ্য সভাপতির নির্দেশ কার্যকর করা হচ্ছে।” রাজ্য বিজেপির কার্যালয় সম্পাদক প্রণয় রায়ের তরফে এই চিঠি জারি করা হয়েছে।

দলের রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে আপোষের বদলে সঙ্ঘাতের পথে যাওয়ার চেষ্টার কারণেই বরখাস্তের মতো বড় পদক্ষেপের কোপে তাদের পড়তে হলো বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ।

দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে রবিবারই শাস্তির মুখে পড়েন ওই দুই বিজেপি নেতা। তাঁদের কারণ দর্শাতে বলে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। তবে উত্তর দেওয়ার নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়নি। আর সেই সুযোগেই সোমবার অমিত শাহ ও জে পি নাড্ডার সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে রাজ্য বিজেপির এই দুই নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার এবং রীতেশ তিওয়ারি চিঠি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেন। ২ ফেব্রুয়ারি শাহ-নাড্ডার সঙ্গে সাক্ষাতের সময় চেয়ে আবেদন জানান দুই রাজ্য নেতা। সূত্রের খবর, জয়প্রকাশ ও রীতেশ ছাড়াও রাজ্যের মণ্ডল সভাপতিদের একাংশও দেখা করতে চান কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে।

ফলে এর পরেই আর সময় নষ্ট না করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরের নেতৃত্বাধীন বিক্ষুব্ধদের বার্তা দিল বিজেপি-র রাজ্য নেতৃত্ব বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।