কাজ নেই, হাতে টাকা নেই! পাঁচ বছরে ৫৪টা গান বানিয়ে রুপঙ্করের রোজগার ২৫০০ টাকা


একসময় বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে দাপিয়ে কাজ করেছেন সংগীতশিল্পী (Rupankar Bagchi) রূপঙ্কর বাগচী। অনুরাগীর সংখ্যাও বিশেষ কম কিছু নয়। তার গাওয়া ‘ও চাঁদ তোর জন্মদিন’, ‘এ তুমি কেমন তুমি’, ‘ভো-কাট্টা’, ‘বউদিমণি’র মতো গান মুক্তি পাওয়ার পরপরই জনপ্রিয় হয়েছে। গায়কের ঝুলিতে উঠেছে পুরস্কার। তবে শেষমেষ কোথাও যেন হারিয়েই যাচ্ছেন রূপঙ্কর বাগচী। বেশ কয়েক বছরে তার গাওয়া নতুন কোনও গান ভাইরাল হয়নি। তাই বলে এই নয় যে নতুন গান গাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন রূপঙ্কর।

শিল্পী কখনও নতুন আবিষ্কারের ইচ্ছা দমন করতে পারেন না। রুপঙ্করও বিগত পাঁচ বছর থেকে একের পর এক গান গেয়ে চলেছেন। ইউটিউব চ্যানেলে গত পাঁচ বছরে তিনি অন্ততপক্ষে ৫৪টি গানের ভিডিও শেয়ার করেছেন। তবে তার আক্ষেপ, একটি গানও শ্রোতাদের পছন্দ হয়নি। লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করে তিনি যে গানের ভিডিও বানালেন, সেখান থেকে তার আয় বলতে মাত্র ২৫০০ টাকা!

সদ্য আনন্দবাজার অনলাইনের লাইভে একটি সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় গায়ক আক্ষেপের সুরে বললেন, “সবাই এখনো রূপঙ্কর মানেই বোঝেন ‘বউদিমণি’ ‘ভোঁ কাট্টা’, ‘এ তুমি কেমন তুমি’, ‘আজ শ্রাবণে’ ইত্যাদি। এর বাইরেও কত গান করেছি। শ্রোতারা শুনতেই চান না।” রুপঙ্কর জানিয়েছেন তিনি বিগত ৫ বছরে ইউটিউবে যে ৫৪টি গান আপলোড করেছেন তার পিছনে তার পারিশ্রমিক বাদ দিয়েও খরচ হয়েছে ৫ লক্ষ ৪ হাজার টাকা। সেই জায়গায় চ্যানেল থেকে পেয়েছেন মাত্র ২৫০০ টাকা।

২০১৯ সালে রুপঙ্করের শেষ জনপ্রিয় গান ছিল ‘জাগো উমা’। এরপর একের পর এক গান গাইলেও শ্রোতাদের থেকে তেমন সাড়া পাননি তিনি। তিনি মনে করেন আজকাল জনসংযোগের দিকটিও একজন গায়কের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি এই বিষয়ে ততটা পটু নন। পার্টিতে যাওয়ার অভ্যেসও নেই তার মধ্যে।

আরও পড়ুন :- ‘মানিকে মাগে হিথে’ গানে গায়িকার এক মাসের আয় লজ্জায় ফেলে দেবে বড় বড় সংস্থার কর্মীদেরও

কাজ শেষ করে বাড়ি ফেরার অভ্যেস। তবে সংগীত শিল্পীর মতে, যাঁরা গান বাজনার মানুষের সঙ্গে বেশি সময় ওঠা বসা করেন, তাঁদের কাজের সুযোগ খানিকটা বেশি। পাশাপাশি এও মনে করিয়েছেন, অতীতেও এই জিনিসটা প্রাধান্য পেত। আজ শ্রোতারা রুপঙ্করের দিক থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছেন। সাক্ষাৎকারে তিনি মনের আক্ষেপ তুলে ধরলেন।